যে কারনে তামিম নিজেও কষ্ট পাচ্ছেন

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

বিশ্বকাপে তামিম ইকবালের ফর্মটা চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে টিম ম্যানেজম্যান্ট, সমর্থকসহ সবার কপালে। ফর্ম নিয়ে চিন্তিত দেশসেরা ওপেনার নিজেও। প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারায় অনুতাপে পুড়ছেন ড্যাশিং এই ব্যাটসম্যান।

দেশসেরা ওপেনার, স্বভাবতই তার উপর পাহাড়সমান প্রত্যাশা সমর্থকদের। কিন্তু বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে তামিম তার নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি এখন পর্যন্ত। ৬ ম্যাচের ৫ ইনিংসে ব্যাটিং করে তার উইলো থেকে এসেছে মাত্র ১৬৫ রান।

তামিমের ব্যাট থেকে একমাত্র হাফসেঞ্চুরিটি এসেছে গত ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। সেখানেও আবার বড় রান তাড়া করতে নেমে ৬২ করতে খেলে ফেলেন ৭৪ টি বল। ব্যাটে সেভাবে রান না পাওয়ার পাশাপাশি ডট বল খেলে দলকে চাপে ফেলার অভিযোগে বেশ সমালোচিতও হচ্ছেন তিনি।

সমর্থকদের যখন এত দুশ্চিন্তা, তামিমের নিজের মনের মধ্যে কি চলছে, সেটা আন্দাজ করাই যায়। প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারায় কষ্ট পাচ্ছেন তিনিও।

নিজের ফর্ম নিয়ে তামিম বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আমি ভালোভাবেই ব্যাট করছিলাম। কিন্তু আমি দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ রানগুলো করতে সক্ষম হইনি। আমার উপর দল এবং আমার নিজেরও অনেক প্রত্যাশা। কিন্তু আমি এখনো পর্যন্ত তেমন কিছুই করতে পারিনি।’

আগের ম্যাচগুলোতে না পারলেও আগামী তিন ম্যাচে প্রত্যাশা পূরণ করতে চান তামিম। তিনি বলেন, ‘নিজেকে পরিবর্তনের জন্য এখনো তিন ম্যাচ বাকি আছে। প্রথম তিন ম্যাচে সেট হয়েও আউট হয়ে গেছি। আমি নিজেকে সেট করেছি, তার পরই দুটা বাজে শট খেলে আউট হয়ে গেছি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচে আমি অনেকগুলো ভালো বল খেলেছি কিন্তু এরপরই নিজের উইকেট উপহার দিয়ে এসেছি। আমাকে আরো বেশি ডিসিপ্লিন হতে হবে।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাটিংয়ের সময় বেশ ভালো অনুভব করছিলেন বলেও জানিয়েছেন তামিম। কিন্তু দলের জন্য বেশি কিছু করতে না পারার আক্ষেপ আছে তার কন্ঠেও। দেশসেরা ওপেনার বলেন, ‘আমি শেষ ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সময় খুব ভালো অনুভব করেছি। ফিফটির জন্য অপেক্ষা করছিলাম। কিন্তু আমার দলের জন্য আরো বেশি কিছু করা প্রয়োজন ছিল।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *